1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : Bangla News1 : Bangla News1
মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৫৮ অপরাহ্ন

সাবেক নৌ-কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অভ্যুত্থান চেষ্টার অভিযোগ এরদোয়ানের- গ্রেফতার ১০

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৬ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৪ বার পঠিত

দেশের সাবেক নৌ-কর্মকর্তাদের একাংশের বিরুদ্ধে সরকারবিরোধী অভ্যুত্থান-প্রচেষ্টার অভিযোগ এনেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেফ তাইয়্যেব এরদোয়ান। কাতারভিত্তিক আলজাজিরা ও ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, এ ঘটনায় নৌবাহিনীর সাবেক ১০ অ্যাডমিরালকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  আরও চার কর্মকর্তাকে তিন দিনের মধ্যে থানায় হাজির হতে বলা হয়েছে। অধিক বয়স বিবেচনায় ওই চারজনকে গ্রেফতার করা হয়নি।

মার্চ মাসে পানামা বা সুয়েজ খালের মতো ইস্তাম্বুলে একটি খাল খনন করার অনুমোদন দেয় তুরস্ক। তবে প্রধান জলপথকে ঘিরে নেওয়া নতুন পরিকল্পনার কারণে ১৯৩৬ সালের মনট্রিয়াক্স চুক্তি হুমকির মুখে পড়তে পারে; এমন আশঙ্কা জানিয়ে একটি খোলা চিঠি লেখেন নৌ বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ১০৪ কর্মকর্তা। এর পরপরই তাদের ১০ জনকে গ্রেফতার করা হলো।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের সবচেয়ে উচ্চাকাঙ্ক্ষী প্রকল্প ইস্তাম্বুল খাল। যেখানে নতুন বিমানবন্দর, সেতু, রাস্তা ও টানেল নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে। তবে যুদ্ধ ও শান্তিকালীন উভয় সময় বসফরাস ও দার্দানেলিস প্রণালিতে বেসামরিক নৌ যান কোনও ধরনের বাধা ছাড়াই চলাচলের কথা বলা রয়েছে মন্ট্রিয়াক্স চুক্তিতে। ওই দুই প্রণালির সীমানার অভ্যন্তরে তুরস্কের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণের কথাও চুক্তিটিতে রয়েছে। সাবেক নৌ-কর্মকর্তারা তাদের চিঠিতে বলছিলেন, তুরস্কের সুরক্ষার জন্য সবথেকে জরুরি মিন্ট্রয়াক্স চুক্তিকে হুমকিতে ফেলা যথাযথ হবে না।

চিঠিতে এরদোয়ান সরকারের সমালোচনা করায় সোমবার (৫ এপ্রিল) সাবেক নৌ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়। রবিবার (৪ এপ্রিল) রাষ্ট্রের ‘নিরাপত্তা ও সাংবিধানিক নির্দেশের বিরুদ্ধে অপরাধ সংগঠনের’ সন্দেহে অবসরপ্রাপ্ত নৌ কর্মকর্তাদের নিয়ে তদন্ত শুরু করে রাষ্ট্রপক্ষের প্রসিকিউটর।

নৌবাহিনীর ১০৪ কর্মকর্তার চিঠি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে তুরস্কের কর্মকর্তারা জানান, চিঠিতে সামরিক অভ্যুত্থানের আহ্বান করা হয়েছিল বলে প্রমাণ হচ্ছে। এ ব্যাপারে তুরস্কের স্পিকার মুস্তফা সেনটোপ বলেন, কেউ যদি নিজের ভাবনার কথা জানায়, তা এক বিষয়। কিন্তু ঘোষণা দিয়ে অভ্যুত্থানের ডাক দেয়া ভিন্ন বিষয়।

প্রসঙ্গত, ১৯৬০ ও ১৯৮০ সালের মধ্যে তুরস্কে তিনবার সামরিক অভ্যুত্থান হয়। ২০১৬ সালে এরদোয়ানকে ক্ষমতাচ্যুত করতে সামরিক অভ্যুত্থানের চেষ্টা করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক মুসলমান ধর্মপ্রচারক ফেতুল্লাহ গুলেনের অনুসারীরা ওই সেনা অভ্যুত্থান করতে চেয়েছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..