1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : Bangla News1 : Bangla News1
মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৩৩ অপরাহ্ন

নিউজিল্যান্ডে এর চেয়ে ভালো সুযোগ আমরা পাইনি- তামিম

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ, ২০২১
  • ২৪ বার পঠিত

ক্রাইস্টচার্চে ২৬০ রানের বেশি তাড়া করে জয়ের রেকর্ড ছিল না। অথচ বাংলাদেশের করা ২৭১ রানও টপকে গেল স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড! বলা ভালো নিউজিল্যান্ডকে জিততে ‘সাহায্য’ করেছে বাংলাদেশ। ক্যাচ মিসের মহড়ায় জয়ের সুযোগ হাতছাড়া করেছে স্বাগতিকরা। স্বভাবতই হতাশা গ্রাস করেছে বাংলাদেশ ক্যাম্পে। আর সেটি গোপনও করেননি সংবাদ সম্মেলনে আসা অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

মঙ্গলবার হ্যাগলি ওভালে ২৭২ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৫৩ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে কিউইরা। তারপরও ম্যাচটি জিততে পারেনি বাংলাদশে গুরুত্বপূর্ণ দুটি ক্যাচ ফেলে। তামিম বললেন, ‘এর চেয়ে ভালো সুযোগ কোনও সময় আমরা পাইনি। এটা আমাদের অবশ্যই জেতা উচিত ছিল। দেশের বাইরে এমন সুযোগ সবসময় আসে না। আজ আমরা যেভাবে ব্যাটিং করেছি, উইকেটটা একটু স্লো ছিল, কঠিন ছিল। ২৭১ অবশ্যই ভালো স্কোর।’

সঙ্গে যোগ করলেন, ‘সেই সঙ্গে ৫০ রানে ওদের ৩ উইকেট নিয়ে আমরা যেভাবে শুরু করেছিলাম। তারপর খেলাটা প্রায় আয়ত্বে ছিল, কিন্তু দুইটা সুযোগ, যেটা মিস করলাম… এই চান্সগুলো যদি তুলতে পারতাম, তাহলে এই ম্যাচটা আমরা জিততে পারতাম। সত্যি হতাশ যে আমরা এরকম সুযোগ কাজে লাগাতে পারিনি।’

চোখেমুখে হতাশা নিয়ে পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে উঠেছিলেন তামিম। সেখানে তার কাছে জানতে ‍চাওয়া হয়েছিল, ডানেডিন থেকে ক্রাইস্টাচার্চে কি আপনাদের উন্নতি হয়েছে? সেই প্রসঙ্গ টেনে বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক বললেন, “আমি উত্তরে বলেছি, ‘হ্যাঁ, এটা হয়তো বড় উন্নতি।’ কিন্তু আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি আমরা এখানে উন্নতি করতে আসিনি। আমরা এখানে ম্যাচ জিততে এসেছি। আজ আমাদের জন্য সেই সুযোগটা ছিল যা আমরা কাজে লাগাতে পারিনি। তবে হ্যাঁ উন্নতির দিকে বলতে পারেন যে ১৩০ (আসলে ১৩১) করেছিলাম এখন ২৭১ করেছি।’

ক্রাইস্টাচার্চে দ্বিতীয় ম্যাচে ৭২.২২ স্ট্রাইক রেটে তামিম ১০৮ বলে খেলেছেন ৭৮ রানের ইনিংস। অন্যদিকে ১২৮.০৭ স্ট্রাইক রেটে ৫৭ বল খেলে মোহাম্মদ মিঠুন অপরাজিত থেকেছেন ৭৩ রানে। মিঠুনের ব্যাটিং নিয়ে প্রশংসা ঝরেছে তামিমের কণ্ঠে, ‘হ্যা, অবশ্যই ও (মিঠুন) অসাধারণ একটা ইনিংস খেলেছে। কিন্তু একটা জিনিস মাথায় রাখতে হবে যে আজ সে ভালো খেলেছে বলে ওর ব্যাপারে কথা বলছি। কিন্তু ও যে পজিশনে খেলে বা যে অবস্থায় খেলে, এটা আসলে সহজ না। যতই প্রতিষ্ঠিত ক্রিকেটার হোক না কেন, তার সঙ্গেও যদি এরকম হয় ব্যাপারটা তার জন্য কঠিন হবে।’

তামিম আরও বলেছেন, ‘দেখেন জিম্বাবুয়ের সঙ্গে ও (মিঠুন) সুযোগ পেয়েছিল এবং দুই-তিনটিতে ভালো খেলেছিল। এরপর উইন্ডিজের সঙ্গে সাকিব ফিরে আসায় তিনটি ম্যাচেই সে খেলেনি। আবার এখানে এসে সে খেলছে। এরকম অবস্থায় যে কোনও ব্যাটসম্যানের জন্য ভালো খেলা কঠিন। তাই আমি খুব খুশি যে ও এরকম একটা ইনিংস খেলেছে এবং আশা করি দ্রুত একাদশে নিজের জায়গাটা পাকা করে নিতে পারবে।’

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..