Home / Uncategorized / ডেম্বেলের প্রত্যাবর্তনে ড্র দিয়ে বছর শুরু বার্সেলোনার!

ডেম্বেলের প্রত্যাবর্তনে ড্র দিয়ে বছর শুরু বার্সেলোনার!

উসমান ডেম্বেলেকে দলে টানতে ক্লাব ও দেশের দলবদলের রেকর্ড ভেঙেছে বার্সেলোনা। সেপ্টেম্বর মাস থেকে বার্সা স্কোয়াডে অনুপস্থিত ডেম্বেলেকে অবশেষে কাল দেখা গেল মাঠে। কোপা দেল রের ম্যাচে সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে নেমেছিলেন তিনি। কালকের ম্যাচ থেকে এটুকুই তৃপ্তি ভালভার্দের। সেল্টার মাঠে ১-১ গোলে ড্র করেছে বার্সেলোনা। সেল্টার মাঠে খেলার শেষ ২০ মিনিটের জন্য এই ফরাসি তারকাকে মাঠে নামান আর্নেস্টো ভালভার্দে। তবে তারপরও জয় নিয়ে ফিরতে পারেনি কাতালানরা।

লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজ ও আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার মতো তারকা খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিয়ে সেল্টার মাঠে অপেক্ষাকৃত কম শক্তির দল নামায় বার্সেলোনা। প্রতিপক্ষের মাঠে এগিয়ে থেকেও জয় নিয়ে ফিরতে পারেনি ভালভার্দের দল। প্রতিপক্ষের মাঠে খেলার ১৫তম মিনিটে লিড নেয় বার্সেলোনা। আন্দ্রে গোজেমের নিচু ক্রস থেকে গোলমুখের সামনে থেকে বুলেটগতির শটে সেল্টার জাল কাঁপান বার্সেলোনা ‘বি’ দলের খেলোয়াড় হোসে আরনাইজ।

তবে সমতায় ফিরতে খুব একটা সময় নেয়নি সেল্টা ভিগো। ৩১তম মিনিটে জোরালো শটে লক্ষ্যভেদ করে স্বাগতিকদের সমতায় ফেরান পিয়োনে সিস্তো। বিরতির পর জয়সূচক গোলের জন্য দুই দলই বেশ কয়েকটি সুযোগ নষ্ট করে। তবে সেল্টার ইয়াগো আসপাস এবং বার্সেলোনার সার্জিও বুসকেটস ও সার্জিও রবার্তোর শট পোস্টে লেগে বাধাগ্রস্ত হলে কোনো দলই আর গোল পায়নি। ১১ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার ফিরতি লেগে ন্যু-ক্যাম্পে সেল্টা ভিগোকে আতিথ্য দেবে বার্সেলোনা।

কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে হলে বার্সেলোনাকে ফিরতি লেগে জিততে হবে কিংবা গোলশূন্য ড্র করতে হবে। রাজধানীতে কাল বিএনপি’র বিক্ষোভ কর্মসূচি আজ ৫ জানুয়ারি। ২০১৪ সালের এই দিনে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ বিজয়ী হয়। বিজয় উপলক্ষে আওয়ামী লীগ দিনটিকে ‘গণতন্ত্রের বিজয় দিবস’ হিসেবে উদযাপন করলেও বিএনপি পালন করে ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ হিসেবে।

এই দিবস পালনে আজ ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ থেকে রাজধানী ঢাকার উন্মুক্ত স্থানে সমাবেশের অনুমতি পায়নি বিএনপি। এরই প্রতিবাদে আগামীকাল ঢাকা মহানগরের থানায় থানায় বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। আজ শুক্রবার সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেন বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভি।

তিনি বলেন, সভা-সমাবেশ করতে বাধা দেয়ার মাধ্যমে সরকারের গণতন্ত্র ও গণতন্ত্রে স্বীকৃত বিরোধী দলের অধিকারের ওপর দুর্বৃত্তমূলক আচরণের বহি:প্রকাশ ঘটেছে। বর্তমান ভোটবিহীন সরকার গণতন্ত্রের নিষ্ঠুর প্রতিপক্ষ। তাদের বাকশালী প্রেতাত্মা আরো বিধ্বংসী রূপ নিয়ে আত্মপ্রকাশ করেছে। তিনি আরো বলেন, আদিম অমানবিকতার মনোবৃত্তি নিয়ে গুম, খুন, বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড ছাড়াও দুর্নীতি ও অনৈতিক উপায়ে অর্থ উপার্জন আড়াল করে রাখতেই বিরোধীদলহীন রাষ্ট্রব্যবস্থা কায়েমের নীল নকশা বাস্তবায়ন করছে বর্তমান বিনা ভোটের সরকার।

আর এ কারণেই বিএনপি-কে আজ ৫ জানুয়ারী গণতন্ত্র হত্যার কালো দিবসের কর্মসূচিতে সন্ত্রাসী দলের ন্যায় আচরণ করছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। এ সময় তিনি আগামীকাল ঢাকা মহানগরের থানায় থানায় বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। পান চাষে ঝুঁকছে কৃষক দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে পান চাষ করে সফলতা অর্জন করছেন কৃষক। অল্প খরচে বেশি আয় করছেন তারা। ফলে দিন দিন পান চাষে আগ্রহ বাড়ছে চাষীদের।

স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে এখানকার উৎপাদিত ৭৫ ভাগ পান সরবরাহ করা হচ্ছে বিভিন্ন জেলায়। গোষ্ঠীগতভাবে বাপ-দাদার সময় রেখে যাওয়া পানের বরজকে অনেকেই মনে করছেন আর্শীবাদ। তাই আগ্রহ নিয়ে চাষ করছে উপজেলার পান চাষীরা। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ বছর উপজেলায় বানিজ্যিক ভিত্তিতে ৭ একর জমিতে পানের চাষ হয়েছে। এর মধ্যে দক্ষিণ নগর গ্রামেই ৯৫ ভাগ পান চাষ করা হয়েছে। বর্তমানে উপজেলার ২০টি পরিবার এই পান চাষের সাথে জড়িত।

পান চাষী পবিত্র জানান, পানের প্রতিটি লতা থেকে ১২-১৫টি চারা লাগানো যায়। বাঁশ, পাটকাঠি, জিআই তার, কাঁশবন, সুপারি পাতা ও সুতা দিয়ে পানের বরজ তৈরি করতে হয়। মাটি থেকে পানের লতা যখন ৪-৫ ইঞ্চি লম্বা হয় তখন পাশে ১টি ৫-৬ ফুট লম্বা পাটকাঠি পুতে দেয়া হয়। পানের লতাটি ধীরে ধীরে বড় হয় এবং পাটকাঠি বেয়ে উপরে উঠতে থাকে। ৫-৬ মাস পর থেকে পান বিক্রির উপযোগী হয়। এরপর প্রতি ৮-১০ দিন পরপর পান বাজারে নেয়া যায়।

তিনি বলেন, একটি বরজ থেকে কমপক্ষে ১৫ বছর একাধারে পান পাওয়া যায়। যদি পানের ‘ফাপ পচা’ রোগ না হয় তাহলে বরজটি ৫০/৬০ বছর থাকে। পান চাষী লক্ষী কান্ত বলেন, চিরিরবন্দরে দুই প্রকার পান চাষ হয়, মিষ্টি পান ও সাঁচি পান। তবে উপজেলায় মোট চাষের ৭০ ভাগই মিষ্টি পান। ধীনেশ চন্দ্র দত্ত বলেন, পান চাষ করেই আমার সংসার চলে, আমি এবং আমার স্ত্রী দুজনেই বরজে কাজ করি। ২১ বছরের বেশী সময় ধরে পানের বরজ করে আসছি।

বর্তমানে আমার ২৫ শতাংশ জমিতে পানের বরজ রয়েছে। প্রতি হাটে (সপ্তাহে দুই দিন) ৪ থেকে ৫ হাজার টাকার পান বিক্রি করি। এখান থেকেই আয় করে সংসারের খরচসহ সন্তানদের লেখাপড়া খরচ চালাই। সনাতন রায় বলেন, দক্ষিন নগরের পান চাষীরা বংশীয়ভাবে বাপ-দাদার পুরনো পেশা আকঁড়ে ধরেই পান চাষ করেন। এখানকার পান সুস্বাদু হওয়ায় এ পানের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে।

ইসুবপুর ইউনিয়নের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ হামিদ শাহ্ জানান, বর্ষা মৌসুমে পানের উৎপাদন বেশি হওয়ায় বাজারে দাম কম থাকে। আর শীতে ফলন কম হওয়ায় দাম চড়া থাকে। মাঠে পানের উৎপাদন বাড়ানো, রোগ-ব্যাধি নির্মূল, সার ও কীটনাশকের সঠিক ব্যবহারে কৃষকদের নিয়মিত পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। উপজেলা কৃষি অফিসার ও কৃষিবিদ মোঃ মাহমুদুল হাসান জানান, চিরিরবন্দরের মাটি উপযুক্ত হওয়ায়, এখানে দীর্ঘদিন ধরে প্রচুর পরিমানে পানের চাষ হয়ে আসছে। বর্তমানে প্রতি বছর পানের আবাদ বৃদ্ধি পাচ্ছে। কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে কৃষকদের সব ধরনের পরমর্শসহ সার্বিক সহযোগিতা দেয়া হচ্ছে।

About admin2 bangla

Check Also

এবার বিয়ের গুঞ্জন সোনামের!

এবার বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন অনিল কাপুর কন্যা সোনম কাপুর। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, এবছরেই নাকি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *