Home / Uncategorized / কারিনার ‘স্ট্রেচ মার্কস’ নিয়ে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া!

কারিনার ‘স্ট্রেচ মার্কস’ নিয়ে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া!

কয়েকদিন আগে ফ্যাশন সাময়িকী ভোগ-এর জন্য ফটোশ্যুট করেন বলিউড অভিনেত্রী কারিনা কাপুর। ছবিতে কমলা রঙের একটি পোশাক পরে পোজ দেন কারিনা। আর সেই ছবিতে সদ্য মা হওয়া কারিনার শরীরে ‘স্ট্রেচ মার্ক’ (গর্ভকালীন সময়ে হওয়া দাগ) এর কোন চিহ্ন নেই। আর তাই নিয়েই তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। কারনিা কাপুর খানের টুইটার থেকে সংগৃহীত অনেকেরই দাবি ফটোশপে কারিনার পেটের স্ট্রেচ মার্কস মুছে দেওয়া হয়েছে। কারণ মাত্র ১ বছর বয়স হয়েছে কারিনার ছেলে তৈমুরের।

এরই মধ্যে কোনো ভাবেই মায়ের শরীর থেকে স্ট্রেচ মার্কস মুছে যেতে পারে না। তাই কারিনার সেই ছবিতে কৃত্রিমভাবে মুছে ফেলা হয়েছে। এটা একেবারেই কাম্য নয় বলে অনেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন। অনেকের আবার দাবি বাম্প দেখাতে যখন সেলিব্রিটিরা দ্বিধা করেন না তখন স্ট্রেচ মার্কস নিয়ে এত লুকোচুরি কেন। আর কারিনার মতো একজন স্বাধীনচেতা অভিনেত্রীর এমন মানসিকতা একেবারেই কাম্য নয়। এরকম একাধিক মন্তব্য পাল্টা মন্তব্য নিয়ে শোরগোল পড়ে গেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

তবে কারিনা তাতে আমল দিতে নারাজ। এখনো পর্যন্ত এই নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি তিনি। রাজের ‘যদি একদিন’ ও কিছু কথা বর্তমান সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় নাট্যনির্মাতা মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ। তার ইচ্ছা ছিলো বড় হয়ে ডাক্তার হবেন। তবে শেষ পর্যন্ত ডাক্তার হওয়া হয়নি তার। মাস্টার্স শেষ করার পর বেশ কয়েক বছর বেকার জীবন কাটাতে হয় তাকে। সে সময় প্রচুর সিনেমা দেখতেন তিনি। এভাবেই তার ভেতর নিজেই সিনেমা বানানোর স্বপ্ন তৈরি হয়।

মিডিয়ায় যাত্রা শুরু হয় বিজ্ঞাপনচিত্র নির্মাণের মাধ্যমে। এবছর শুরু হতে না হতে তিনি ডাক দিয়েছেন নতুন কিছু নির্মাণের। তারই ধারাবাহিকতায় তিনি নির্মাণ করতে যাচ্ছেন ভিন্ন ধর্মী এক চলচ্চিত্র ‘যদি একদিন’। ইতোমধ্যে ছবির নায়ক নায়িকা ও ঠিক করে ফেলেছেন তিনি। তার ছবিতে ফয়সাল চরিত্রে রূপদান করবেন জনপ্রিয় গায়ক ও অভিনেতা তাহসান। আর অরিত্রী চরিত্রে দেখা যাবে অপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রাবন্তীকে। যদিও এই ছবিতে তাহসান ছাড়াও অভিনয় করবেন তাসকিন।

এখন শ্রাবন্তী আসলে কার নায়িকা সেটাও একটা প্রশ্ন। কেননা তাসকিনও এই ছবির নায়ক। গতকাল মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ বিষয়টি ডেইলি বাংলাদেশকে নিশ্চিত করেছেন। রাজ বলেন,শ্রাবন্তী, তাহসান ও তাসকিন ‘যদি একদিন’ ছবিতে অভিনয় করতে যাচ্ছেন। তাদের সঙ্গে ইতোমধ্যে চুক্তি হয়ে গেছে। এর আগে তাহসানকে নিজের ছবিতে প্রথমবারের মতো নিয়ে চমকে দেন রাজ। কেননা এই ছবির মাধ্যমে তাহসানের সিনেমার নায়ক হিসেবে ডেব্যু হতে যাচ্ছেন।

অন্যদিকে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ খ্যাত অভিনেতা তাসকিন রহমানকেও নিজের ছবিতে চুক্তি করিয়ে চমক শুরু করেন। তাসকিন খল হিসেবে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেলেও যদি একদিন ছবিতে হিরো হিসেবে দেখা যাবে তাকে। এক্ষেত্রে তাহসান-শ্রাবন্তী-তাসকিন ত্রিমুখী প্রেমের সম্পর্কের একটা গল্পও দর্শকদের সামনে আসতে পারে। এ বিষয়ে একদমই মুখ খুলছেন না রাজ। তবে ছবিতে মূল চরিত্র হিসেবে রাইসাকেই উল্লেখ করছেন এই নির্মাতা।

নির্মাতা মোস্তফা কামাল রাজ যার কথা বলছেন, সে হলো তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া আফরিন শিখা রাইসা। মায়াবী চেহারার রাইসাই ‘যদি একদিন’ ছবির প্রাণ। তাকে ঘিরেই আবর্তিত হবে গল্প। রাইসার বয়স ৯। সে রাজধানীর আজিমপুর এলাকার গ্রিনলাইন স্কুলের ছাত্রী। এর আগে মিডিয়ায় টুকটাক কাজ করলেও এটাই তার সবচেয়ে বড় কাজ বলে জানালেন রাজ। তিনি জানালেন, রাইসা অনেক মেধাবী একটি শিশু। তাকে ঘিরেই ছবির গল্প।

এখন তাকে অনুশীলন করাচ্ছি। ইতোমধ্যে সে বাইসাইকেল চালানো শিখেছে। আরো বেশকিছু বিষয় রয়েছে সেগুলো করাচ্ছি। এই মুহূর্তেও সে আমার কাছে রয়েছে। ছবিতে তার ভূমিকা কী? এই প্রশ্নের জবাব এখন দেবো না। শুধু বলবো আমার ছবির সবচেয়ে ইমপোর্ট্যান্ট ক্যারেক্টার রাইসা। রাজ আরো বলেন, চরিত্রটির নাম রুপকথা। এই চরিত্রে রাইসাকে বাছাই করেছি ৪৭ জনের মধ্য থেকে। সেটা ছিল বড় একটা প্রতিদ্বন্দ্বীতামূলক বাছাই প্রক্রিয়া। রুপকথার ফিল্মে বয়স ৭ বছর।

ছবির জন্য রাইসা এখন সাইকেল চালানো শিখছেন। অভিনয় শিখছেন। রাইসা জানান, আমার প্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা। তার অভিনয় তাকে মুগ্ধ করে। তিশা আপু আমার জান। তার অভিনয় করা নাটক সিনেমা আমার মিস হয় না। অভিনয়ের দিকে পা বাড়ালেও রাইসা বড় হয়ে টিচার হতে চায়। কেন টিচার হতে চায় সে কথা অবশ্য জানে না রাইসা। ৬ জানুয়ারি থেকে মোস্তফা কামাল রাজের ছবি ‘যদি একদিন’ এর শুটিং শুরু হবে। সবকিছু ঠিক থাকলে ২০১৮ সালের বড় একটি চমকপ্রদ ছবি পেতে যাচ্ছে দেশের দর্শকরা।

About admin2 bangla

Check Also

ডেম্বেলের প্রত্যাবর্তনে ড্র দিয়ে বছর শুরু বার্সেলোনার!

উসমান ডেম্বেলেকে দলে টানতে ক্লাব ও দেশের দলবদলের রেকর্ড ভেঙেছে বার্সেলোনা। সেপ্টেম্বর মাস থেকে বার্সা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *